এম সি কলেজে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে সেমিনার সম্পন্ন

,
প্রকাশিত : ২৯ মার্চ, ২০২২     আপডেট : ৩ মাস আগে

মইনুল হাসান আবির, এম সি কলেজ প্রতিনিধিঃ
সিলেটের ঐতিহ্যবাহী মুরারিচাঁদ কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের উদ্যোগে বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশ: প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি উপলক্ষে সেমিনার সম্পন্ন হয়েছে।

২৯ মার্চ, মঙ্গলবার সকাল ১০.৩০ মিনিটে সেমিনার শুরু হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন মুরারিচাঁদ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্হিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর পান্না রানী রায়। শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক জনাব মো. তোফিক এজদানী চৌধুরী। তাদেরকে ফুল দিয়ে বরণ করেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মাহমুদা কবির’র স্বাগত বক্তব্য দিয়ে অনুষ্ঠানটি শুরু হয়।

বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে মূল প্রবন্ধ উপস্হাপন করেন রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জামাল উদ্দিন। তিনি বলেন, সুনিপুণ অর্থনৈতিক ব্যবস্থাপনা ও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বে বাংলাদেশ ক্রমান্বয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। মাথাপিছু আয় বেড়েছে বাংলাদেশের MDG ও SDG-তে প্রবৃদ্ধির হার বৃদ্ধি পেয়েছে । দরিদ্রতা হ্রাস পেয়েছে, শিক্ষার হার বৃদ্ধি পেয়েছে ও ICT শিক্ষার প্রসার এসবকিছুই স্বাধীনতার অনিবার্য ফল। বাংলাদেশের সাফল্য ও সমৃদ্ধি দেখে বিভিন্ন দেশের সরকার ও রাষ্ট্রপ্রধানরা বাংলাদেশের উন্নয়ন ও সাফল্যের ভূয়সী প্রশংসা করেন। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন, দর্শন, ও সুদূরপ্রসারী নেতৃত্বগুনের কারনে যার ধারাবাহিকতায় তার কন্যা রক্ষা করেছে যার ফলে উন্নয়নশীল রাষ্ট্র গঠনে সফলতা পেয়েছি।

মুরারিচাঁদ কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মো. সালেহ আহমদ বলেন, দূর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশ বিশ্বের রুল মডেল বাংলাদেশের দূর্যোগ মোকাবিলা দেখে বিশ্বের অনেক রাষ্ট্র অনুসরণ করছে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা মাননীয় শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে। ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারে বাংলাদেশে দ্রুত গতিতে উন্নয়ন হচ্ছে। এক সময় গ্রামে দরিদ্রসীমা বেশী ছিলো কিন্তু বর্তমানে গ্রামের মানুষও অনেক উন্নয়নের ছোঁয়া পেয়েছে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের প্রতিটি গ্রামে এখন শতভাগ বিদ্যুৎ রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে শিক্ষার হার বেড়েছে যতেষ্ট পরিমাণ কর্মসংস্থানও রয়েছে কিন্তু দরকার শুধু দক্ষ জনশক্তির। শিক্ষার্থীদের উদেশ্যে বলেন আগে নিজেকে গড়ে তুলতে হবে প্রতিযোগিতার জন্য নিজেকে প্রস্তুত করতে হবে। জানতে হবে প্রচুর, বই পড়তে হবে। এবং তরুণরা উদ্যেক্তা হতে হবে। তবেই বাংলাদেশ আরো এগিয়ে যাবে।

তারপর অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি, বিশেষ অতিথি, মূল প্রবন্ধ উপস্হাপক ও সভাপতিকে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের পক্ষ থেকে বই উপহার দেওয়া দেওয়া হয়।

পরিশেষে অনুষ্ঠানটির সভাপতি রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান প্রফেসর মো. ফরিদ আহমেদ সমাপনি বক্তব্যের মাধ্যমে সেমিনারটি সফলভাবে সম্পন্ন হয়।

সেমিনারে আরো উপস্হিত ছিলেন, অর্থনীতি বিভাগের বিভাগীয় প্রধান, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষকবৃন্দ। রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সকল বর্ষের শিক্ষার্থীরা ও রাষ্ট্রবিজ্ঞান সোসাইটির সদস্যবৃন্দ।


আরও পড়ুন

কমলগঞ্জে একে বাংলা স্কুল ফুটবল লীগের ফাইনাল খেলা অনুষ্ঠিত

         কমলগঞ্জ (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি ঃ মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে...

সড়ক দূর্ঘটনা প্রতিরোধ ও জনসেচতনতা সৃষ্ঠির লক্ষ্যে মানববন্ধন

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: “সময়ের চেয়ে...

মৌলভীবাজার শহরে রাস্তা প্রশস্ত করন কাজের উদ্বোধন

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: এইচ এম...

এমনি হয় শর্ট ফিল্মটি মুক্তি পাবে আগামী ৩রা মে

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক: নাজিম আহমদের...