টানা বর্ষনে বানিয়াচঙ্গে ধান পানির নীচে

Alternative Text
,
প্রকাশিত : ০১ মে, ২০১৮     আপডেট : ৪ বছর আগে

মখলিছ মিয়া,বানিয়াচং থেকে ॥ টানা বর্ষনে বানিয়াচঙ্গের সিংগুয়ার বাঁধ ভেঙ্গে প্রায় ৫শতাধিক হেক্টর জমির ধান পানির নীচে। চরম দূর্ভোগে পড়েছেন ওই সব হাওরের হাজার হাজার কৃষক। গতকাল বিকালে সরেজমিন পরিদর্শন করে দেখা গেছে ২নং উত্তর পশ্চিম ইউনিয়নের অর্ন্তগত সিংগুয়ার বাঁধ ভেঙ্গে ধূমবনদ, ধনার ঘাট, হর মানিয়ার নীচ, তেনাচুরা, খাগদার, কাংলাডুবী, আজমিরীগঞ্জের জলসুখা, নোয়াগড়, কাটাখালী, বদলপুর, পাহাড়পুর, জিলুয়াসহ প্রায় ১৫ থেকে ১৬ টি হাওরের ৫শতাধিক হেক্টর ফসলী জমি পানির নীচে চলে গেছে। শ্রমিকের অভাবে অনেকে পাঁকা জমি সময় মত কাটাতে না পারায় মারাত্মক ক্ষতির মুখে পড়েছেন ওই সকল হাওরের কৃষক কূল। গত বছরের ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে না উঠতেই আবারও চরম বিপদের মুখোমুখি হওয়ায় অনেক কৃষক হতাশাগ্রস্থ হয়ে পড়েছেন। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে কৃষক বাবুল মিয়া, মিজানুর রহমান, আলফু মিয়া, রেজু মিয়া জানান, এ বাঁধটি মেরামতের জন্য এলাকাবাসী বারবার দাবী জানিয়ে আসলেও কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না। অনেকেই ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কৃষক সব কিছু হারিয়ে যখন নিঃস্ব হয়ে যায় তখন অনেকেই আসেন আমাদেরকে শান্তনার বাণী শুনাতে, অথচ আমাদের ফসলী জমি রক্ষার জন্য সময় মত কোন উদ্যোগ নেয়া হয় না। এদিকে টানা বর্ষনের ফলে যে সকল জমির ধান কাটা হয়েছে সে ধানগুলো নিয়েও চরম দূর্ভোগে পড়েছেন কৃষক। যেখানে ধান আনার জন্য ট্রলী এবং ট্রাকটার যাওয়ার কথা সে রাস্তাগুলো এখন পানির নীচে। আচমকা পানি বৃদ্ধি পাওয়ার ফলে নৌকার যোগান না থাকায় যান বাহন সংকটের কারনে অনেক জমির ধান কাটার পরও জমিতেই রাখতে হচ্ছে। যদি বৃষ্টির পানি তড়িৎ না নামে তাহলে কাটা ফসলের জমির ধানও আনা সম্ভব হবে না বলেও অনেক কৃষক জানিয়েছেন। বাঁধসহ হাওরের সার্বিক বিষয়ে বানিয়াচং উপজেলা কৃষি অফিসার মোস্তুফা ইকবাল আজাদ এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ইতিমধ্যে সিংগুয়ার বাঁধ ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে বলে তিনি অবগত হয়েছেন। আজ সরেজমিন পরিদর্শন করে প্রকৃত ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান নিরূপন করা হবে বলে তিনি জানান। সিংগুয়ার বাঁধ ঝুকিপুর্ন থাকার পরও কেন এবছর বাঁধটি মেরামত করা হল না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, আমাদের উপজেলা কৃষি অফিস থেকে ঝুকিপূর্ন তালিকায় এ বাঁধটি ছিল। বাঁধ মেরামতের দায়িত্ব পানি উন্নয়ন বোর্ডের কাছে থাকায় এ বিষয়ে আমাদের তেমন কিছু করার থাকে না বলেও তিনি জানান।


আরও পড়ুন

ঈদের কেনাকাটা ছুটছেন ক্রেতারা

         করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে দেশে চলছে...

বিশ্বজুড়ে মোট করোনা শনাক্ত ৩৫ কোটি

         করোনা মহামারি শুরুর পর থেকে...

প্রবীণ ব্যক্তিত্ব আব্দুল মঈন আর নেই : আজ বাদ জোহর জানাযা

         সিলেট নগরীর প্রবীণ ব্যক্তিত্ব, উত্তর...