প্রবাসী বিনিয়োগকারীদের সাথে সিলেটের ব্যবসায়ীদের বাণিজ্য সম্পর্ক গড়ে তোলার ব্যাপারে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস

,
প্রকাশিত : ১২ মে, ২০২২     আপডেট : ৪ দিন আগে

আজ বুহস্পতিবার বিকেলে চেম্বার কনফারেন্স হলে লন্ডনস্থ টাওয়ার হ্যামলেট্স এর স্পীকার মোহাম্মদ আহবাব হোসেন ও প্রতিনিধিদলের সাথে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সিলেট চেম্বারের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জনাব ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ। সভায় টাওয়ার হ্যামলেট্স এর স্পীকার কাউন্সিলর মোহাম্মদ আহবাব হোসেন বলেন, লন্ডনে অবস্থানরত বাংলাদেশীরা বৃটেনের অর্থনীতি ও রাজনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে যাচ্ছেন। তিনি জানান, টাওয়ার হ্যামলেট্স লন্ডনে অবস্থিত বাণিজ্যিকভাবে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি শহর। টাওয়ার হ্যামলেট্স এ উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বাংলাদেশী বসবাস করেন, যাদের সিংহভাগই সিলেটী। পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা ও নিরাপত্তা পেলে তারা অবশ্যই দেশে বিনিয়োগে এগিয়ে আসবেন। তিনি বলেন, সিলেটের সাথে আমাদের শেকড়ের বন্ধন রয়েছে, আমরা বৃটেনে গড়া উঠা প্রবাসীদের নতুন প্রজন্মকে দেশের প্রতি আকৃষ্টকরণের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছি। তিনি বাংলাদেশে পুনরায় ভিসা সেন্টার চালু এবং টাওয়ার হ্যামলেট্স তথা লন্ডনের ব্যবসায়ীদের সাথে সিলেটের ব্যবসায়ীদের বাণিজ্য সম্পর্ক গড়ে তোলার ব্যাপারে সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। তিনি সিলেট চেম্বারের বিভিন্ন কার্যক্রমের ভূঁয়সী প্রশংসা করেন এবং সিলেট চেম্বার অব কমার্সের পক্ষ থেকে টাওয়ার হ্যামলেট্স এ বাণিজ্য প্রতিনিধিদল প্রেরণের আহবান জানান।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জনাব ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ বলেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্স বৃহত্তর সিলেটের অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। এ অঞ্চলে বিদেশী বিনিয়োগ বৃদ্ধিতে আমরা ইতোপূর্বে অনেকগুলো বিদেশী প্রতিনিধিদলের সাথে মতবিনিময় সভায় মিলিত হয়েছি। বর্তমান সরকারও প্রবাসীদেরকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদানে বদ্ধ পরিকর। প্রবাসীদের জন্য সঠিক বিনিয়োগের ক্ষেত্র সৃষ্টি ও নিরাপত্তা বিধানে বর্তমান সরকার অনেকগুলো কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে কোম্পানীগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক অন্যতম। তিনি এই মেগা প্রকল্পে বিনিয়োগে প্রবাসীদের উদ্বুদ্ধ করতে প্রতিনিধিদলের প্রতি আহবান জানান। তিনি বাংলাদেশে পুনরায় ভিসা সেন্টার চালু ব্যাপারে স্পীকার মহোদয়ের সহযোগীতা কামনা করেন।

সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট চেম্বারের সহ সভাপতি মোঃ আতিক হোসেন, পরিচালক জিয়াউল হক, মুজিবুর রহমান মিন্টু, আলীমুল এহছান চৌধুরী, ওয়াহিদুজ্জামান চৌধুরী (রাজিব), কাজী মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, সিলেট চেম্বারের প্রাক্তন সভাপতি ফারুক আহমদ মিছবাহ, খন্দকার সিপার আহমদ, সাবেক সিনিয়র সহ সভাপতি চন্দন সাহা, গ্রেটার লন্ডন অথরিটি এর নির্বাচিত সদস্য এবং মেট্রোপলিটন পুলিশের চেয়ারম্যান উনমেশ দেশাই, লন্ডন টি এক্সচেঞ্জ এর সিইও শেখ অলিউর রহমান, রেডস্ট্রাইক এর সিইও এবং ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাইক ফারনান, ক্যাপিটাল কিডস ক্রিকেট এর সিইও এবং বাংলাদেশ এবং মালয়েশিয়া ক্রিকেট বোর্ডের সাবেক জাতীয় কোচ মোঃ শহিদুল আলম (রতন), উক্সব্রিইজ ব্রাঞ্চ এর চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আব্দুল কাদির, ইউরোপিয়ান ক্যারাম কনফেডারেশন এর ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং টাওয়ার হ্যামলেটস এর স্পীকারের কনসোর্ট মোহাম্মদ আলী, সিটি অফ লন্ডন কর্পোরেশনের কাউন্সিলর ও লন্ডন বেঙ্গলি ফিল্ম ফেস্টিভ্যালের প্রতিষ্ঠাতা মুনসুর আলী, ব্রিটিশ বাংলাদেশ ফ্যাশন কাউন্সিলের চেয়ারম্যান ফখরুল হক, ব্যবসায়ী ও উদ্যোক্তা মিসবাহ আহমেদ বিন সামাদ চৌধুরী, আব্দুল করিম নাজিম, আসিক রহমান, সিলেট চেম্বারের সদস্য এ. কে এম আশরাফ উদ্দিন, আলতাফ হোসেন, আরিফ হোসেন, মোঃ আবুল কালাম প্রমুখ।


আরও পড়ুন