যুক্তরাজ্যের ব্রাডফোর্ডের লর্ড মেয়র ও প্রতিনিধিদলের সাথে সিলেট চেম্বার নেতৃবৃন্দের মতবিনিময়

,
প্রকাশিত : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২২     আপডেট : ৪ মাস আগে

চেম্বার কার্যালয়ে যুক্তরাজ্যের ব্রাডফোর্ডের লর্ড মেয়র সাবির হোসেন ও প্রতিনিধিদলের সাথে দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র নেতৃবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে সভাপতিত্ব করেন সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ।

সভায় ব্রাডফোর্ডের লর্ড মেয়র সাবির হোসেন বলেন, বাংলাদেশ বিশ্বের দ্রুত উন্নয়নশীল দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম। এখানে বিনিয়োগের অনেকগুলো উপযুক্ত ক্ষেত্র রয়েছে, বিশেষ করে শিক্ষা, স্বাস্থ্য ইত্যাদি খাত অনেক সম্ভাবনাময়। তিনি বলেন, যুক্তরাজ্যে বিনিয়োগকারীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। তবে এক্ষেত্রে তাদের পর্যাপ্ত দিকনির্দেশনা, সহযোগিতা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করা প্রয়োজন। পর্যাপ্ত সুযোগ-সুবিধা পেলে প্রবাসীরা অবশ্যই বাংলাদেশে বিনিয়োগে এগিয়ে আসবেন। তিনি সিলেট তথা বাংলাদেশে বিনিয়োগের সুযোগ-সুবিধাগুলো প্রবাসীদের কাছে তুলে ধরার আহবান জানান। তিনি বলেন, বাংলাদেশে আন্তর্জাতিক মানের প্রশিক্ষণ প্রদানের মাধ্যমে দক্ষ নার্স গড়ে তুলতে পারলে বিদেশে ভালো চাকুরীর সুযোগ-সুবিধা রয়েছে। তিনি প্রতিনিধিদলে অংশগ্রহণকারী যুক্তরাজ্যের বিনিয়োগকারী ও কমিউনিটি লিডারদের সাথে চেম্বার নেতৃবৃন্দকে পরিচয় করিয়ে দেন এবং দেশে বিনিয়োগের বিভিন্ন পরিকল্পনা সম্পর্কে অবহিত করেন।

সভাপতির বক্তব্যে সিলেট চেম্বারের সিনিয়র সহ সভাপতি ফালাহ উদ্দিন আলী আহমদ বলেন, সিলেট চেম্বার অব কমার্স বৃহত্তর সিলেটের ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্প ও অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য্য, খনিজ সম্পদ ও ভৌগলিক অবস্থানের কারণে সিলেট বিনিয়োগের জন্য অত্যন্ত সম্ভাবনাময় একটি স্থান। সিলেটে বিদেশী বিনিয়োগকে ত্বরান্বিত করতে আমরা দীর্ঘদিন যাবৎ কাজ করে যাচ্ছি। এ ব্যাপারে বৃটেনের বিভিন্ন বাণিজ্য সংগঠন ও প্রতিনিধিদলের সাথে আমাদের মতবিনিময় ও প্রতিনিধি বিনিময় হয়েছে। তিনি বলেন, বাংলাদেশের বর্তমান সরকার দেশে বিনিয়োগ বান্ধব পরিবেশ সৃষ্টিতে সফল হয়েছেন। প্রবাসীদের সার্বিক নিরাপত্তা বিধান ও সঠিক বিনিয়োগের ক্ষেত্র সৃষ্টিতে বর্তমান সরকার অনেকগুলো কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। যার মধ্যে সিলেট স্পেশাল ইকোনমিক জোন ও সিলেট হাইটেক পার্ক অন্যতম। এ দুটি প্রকল্পে বিনিয়োগ করে প্রবাসীরা লাভবান হতে পারেন। এছাড়াও সিলেটে রপ্তানিমুখী শিল্প, পর্যটন, শিক্ষা ও চিকিৎসা খাতে বিনিয়োগের পর্যাপ্ত সুযোগ রয়েছে বলে তিনি জানান।

সভায় বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন প্রতিনিধিদলের সদস্য কাউন্সিলর আশরাফ মিয়া, ফুলজার আহমেদ, ড. মনোজ এন এল জোশি, নাইজেল উড ওবিই, হুমায়ুন ইসলাম ওবিই, সাহিদুর রহমান, গ্রাহাম সোয়াইন, ভাবনা জোশি, সাইফুল ইসলাম, সিলেট চেম্বারের পরিচালক মোঃ হিজকিল গুলজার, মোঃ আব্দুস সামাদ, কাজী মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, শাবিপ্রবি’র প্রফেসর ড. সৈয়দ আশরাফুর রহমান, ইউকেবেট এর নির্বাহী পরিচালক এম. এ. সায়েম, সিলেট মেট্রোপলিট চেম্বারের পরিচালক মুয়াম্মির হোসেন চৌধুরী, বিআইবিসি এর ডাইরেক্টর মেহনাজ হুদা, সিলেট চেম্বারের সদস্য আব্দুল হাদী পাবেল, আল-হারামাইন হসপিটালের ডেপুটি ডাইরেক্টর আহমাদ নাফি, সিলেট চেম্বারের সচিব মোঃ গোলাম আক্তার ফারুক, যুগ্ম সচিব নূরানী জাহান কলি, সহকারী সচিব সানু উদ্দিন রুবেল প্রমুখ।


আরও পড়ুন

মহররমের তাৎপর্য ও গুরুত্ব

         বেলাল আহমদ চৌধুরী:: মহামহিমান্বিত হিজরী...

নূপুর বেতার ক্লাবের লোক উৎসব অনুষ্ঠিত

         বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের কেন্দ্রীয় সদস্য ও...

সিলেটে অর্ধশতাধিক অবৈধ স্থাপনা গুড়িয়ে দিলেন মেয়র আরিফ

         সিলেট এক্সপ্রেস ডেস্ক :  সিলেটের...

এসসিএস’র সাথে সিলেট ব্যবসায়ী পরিষদের সৌজন্য সাক্ষাত

         দি সিলেট চেম্বার অব কমার্স...